Saturday , May 18 2024
Breaking News

রাজধানীর অভিজাত এলাকায় অভিজাত ময়লা দেখেছি: মেয়র আতিকুল

রোকনউজ্জামান রিমন: আবর্জনা ময়লা আমরা কি ধরনের পাই, প্যারিস খাল, লাউতলা খাল ও গুলশান লেকে দেখলাম অভিজাত এলাকায় অভিজাত ময়লা। তখন আমার কাছে মনে হলো ময়লা-আবর্জনা গুলো রেখে দিয়ে একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করার কথা জানিয়েছেন, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

শনিবার (১১ মে) সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে রাজধানীর গুলশান-২ এর ডিএনিসিসির নগরভবনের সামনে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে খালে, ড্রেনে ও যত্রতত্র ফেলে দেওয়া বর্জ্যের ৩দিন ব্যাপী প্রদর্শনীর উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, শাড়ি-পাঞ্জাবি বিভিন্ন ধরনের প্রদর্শনীর আয়োজন হয়। ময়লা-আবর্জনার প্রদর্শনী আমরা বড় আকারে প্রথমবারের মতো আয়োজন করলাম। প্রদর্শনী করতে চেয়েছিলাম তিন দিন তবে এই প্রদর্শনে চলবে আগামী শনিবার পর্যন্ত। এখানে সব ধরনের আবর্জনা আছে। ড্রেন ও খাল থেকে আমরা পেয়েছি, সোফা, সুটকেস, কমড ও রিকশা। তোষক বালিশ ও রিকশা যদি ড্রেনে, খালে বা লেকের মধ্যে ফেলা হয়, তাহে তো জলাবদ্ধতা হবেই। কোন খাল লেক বা ড্রেনের থেকে কোন ময়লা- আবর্জনা সংগ্রহ করেছি তাও লেখে রাখা হয়েছে।

নগরবাসীকে আহ্বান জানিয়ে মেয়র বলেন, আসুন আমরা যেন ড্রেনে,খালে বা লেকে কোন ধরনের ময়লা না ফেলি। গত ৬ মাস যাবত আমরা ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করে যাচ্ছি। আরেক দিক থেকে ময়লা-আবর্জনা ভরাট হচ্ছে। চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্যই এই প্রদর্শনীর আয়োজন করেছি। নগরবাসীদের বলতে চাই আপনাদের সহযোগিতা আমাদের একান্ত প্রয়োজন। সাধারণ একটি পিট থেকে আজকে প্লাস্টিকের বোতল উদ্ধার করা হয়েছে। রাজধানীতে কোটি লোকের বসবাস। নগরবাসী যদি এগিয়ে না আসে রাজধানী পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন আমাদের (ডিএনসিসির) জন্য দুষ্কর ব্যাপার হয়ে যাচ্ছে।

মেয়র বলেন, এডিস মশার সৃজন চলে এসেছে। কখনো রোদ উঠছে, কখনো আবার বৃষ্টি হচ্ছে। এ ধরনের সচেতন জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আমরা কাজ করবো। আজকে প্রদর্শনীতে স্কুলের শিক্ষার্থীরা এসেছে। পরশুদিন ইংলিশ মিডিয়ামের শিক্ষার্থীরাও আসবে। এ ধরনের প্রচারণা আমাদের চালাতে হবে।

এছাড়াও

হিট অফিসার নিয়োগের কোন পরিকল্পনা নেই:ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

শেষবার্তা ডেস্ক : সাম্প্রতিক তাপদাহকে দুর্যোগ হিসেবে পরিগণিত করা হয়েছে। যে কোন দুযোগে মৃত্যু ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *