Sunday , April 21 2024
Breaking News

এবি পার্টির ‘গণ-শপথ’ অনুষ্ঠান

শেষবার্তা ডেস্ক : একদরফা নির্বাচনের প্রতিবাদে রাজধানীতে অভিনব এক অনুষ্ঠান করেছে আমার বাংলাদেশ পার্টি-এবি পার্টি। নির্বাচনকে প্রহসন উল্লেখ করে ‘ফাইভ পার্সেন্ট সংসদ’ ও ‘ডামি মন্ত্রিসভার শপথ’ আখ্যায়িত করে ‘গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও সুশাসনভিত্তিক বাংলাদেশ’ গড়ার ‘গণ-শপথ’ শিরোনামে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে দলটি। এতে গণতন্ত্র ধ্বংস করে দেশকে ‘এক পরিবারের রাজ্যে’ পরিণত করার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকারসহ দেশবাসীকে নতুন শপথে বলীয়ান হওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

এবি পার্টির আহ্বায়ক ও সরকারের সাবেক সচিব এএফএম সোলায়মান চৌধুরীর সভাপতিত্বে মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) বিকেল ৩টায় বিজয় নগরে বিজয়-৭১ চত্বরে এই গণশপথ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচন বর্জনকারী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা ছাড়াও এবি পার্টির নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগণ এই গণ-শপথে অংশ নেন। এএফএম সোলায়মান চৌধুরী ও বিভিন্ন দলের নেতারা যৌথভাবে উপস্থিত জনতাকে গণ-শপথ পাঠ করান।

এবি পার্টির সদস্যসচিব মজিবুর রহমান মঞ্জুর সঞ্চালনায় গণ-শপথ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন দলের যুগ্ম আহ্বায়ক প্রফেসর ডা. মেজর (অব.) আব্দুল ওহাব মিনার। গণশ-পথে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য দেন গণতন্ত্র মঞ্চের নেতা ও নাগরিক ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল্লাহ কায়সার, ভাসানী অনুসারী পরিষদের সদস্যসচিব হাবিবুর রহমান রিজু, জাগপার সহ সভাপতি ও ১২ দলের সমন্বয়ক রাশেদ প্রধান, এবি পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক বিএম নাজমূল হক ও এবি পার্টির যুগ্ম সদস্যসচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ।

সমবেত শপথবাক্যে বলা হয়:আমি ও আমরা দৃপ্তকণ্ঠে শপথ করছি যে, লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের প্রিয় জন্মভূমি বাংলাদেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের নীতি রক্ষার জন্য আমাদের চেষ্টা এবং সংগ্রাম অব্যাহত রাখবো। গণতন্ত্রের ছদ্মাবরণে যারা আমাদের ভোটাধিকার হরণ করেছে, দুঃশাসন চাপিয়ে দিয়ে দেশকে লুটপাটের স্বর্গরাজ্য বানিয়েছে, জনগণের অধিকার পদদলিত করে ‘ফাইভ পার্সেন্ট’ একদলীয় সরকার কায়েম করে এমপি ও মন্ত্রিসভার প্রতারণামূলক শপথ নিয়েছে আমরা সমবেত কণ্ঠে তাদের প্রত্যাখ্যান করছি।

যারা ছাত্র-ছাত্রীদের জীবন ও বিবেক ধ্বংস করার জন্য অনৈতিক ষড়যন্ত্রমূলক শিক্ষাব্যবস্থা চালু করেছে, সিন্ডিকেট করে দ্রব্যমূল্য বাড়িয়ে কোটি কোটি কৃষক শ্রমিক দিনমজুর খেটে খাওয়া মানুষকে দূর্ভিক্ষ ঘটিয়ে তিলে তিলে মৃত্যুমুখে ঠেলে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছে, প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স লুটেপুটে বিদেশে পাচার করে দেশের রিজার্ভশূন্য করে ফেলেছে, যাদের দুর্নীতি ও চুরির কারণে চরম ডলার সংকট দেখা দিয়েছে এবং সাধারণ ব্যবসায়ীরা আজ পথে বসতে যাচ্ছে, যারা দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী, প্রশাসন ও বিচার বিভাগে কর্মরত নাগরিকদের বিতর্কিত করে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

যাদের সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, ক্যাম্পাস দখল, মাদক ব্যবসা, প্রশ্নপত্র ফাঁস ও দলীয়করণের কারণে ৯৫ ভাগ মানুষের জন্য দেশ আজ কষ্টকর জাহান্নামে পরিণত হয়েছে। আমরা এই ‘৫ পার্সেন্ট’ শোষক লুটেরাদের কবল থেকে মুক্তি চাই। আমরা মনে করি এরা দেশ ও দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের শত্রু। রাষ্ট্র ক্ষমতার অপব্যবহার করে মেরে, কেটে, গুম, খুন ও দমন নিপীড়নের মধ্যমে জনগণকে দাস বানিয়ে তারা আমাদের প্রিয় দেশকে এক পরিবারের রাজ্য বানাতে চায়- আমরা তা হতে দেবে না।

আজ থেকে আমরা নতুন করে শপথ নিচ্ছি। সকল বাধা, ভয়-ভীতি ও জুলুম-শোষণের বিরুদ্ধে আমরা আমাদের প্রতিবাদ জারি রাখবো। এই ফাইভ পার্সেন্ট জালেমদের বিরুদ্ধে আমরা ৯৫ পার্সেন্ট মজলুম জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করব এবং নিয়মতান্ত্রিকভাবে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করবো।

মহান মুক্তিযুদ্ধের ঘোষণাপত্রের অঙ্গীকার অনুযায়ী সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক সুবিচার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য থেকে আমরা কখনো বিচ্যুত হবোনা। সর্বশক্তিমান মহান সৃষ্টিকর্তা আমাদের শক্তি ও সামর্থ্য দিন আমরা যেন, স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব অক্ষুণ্ন রেখে এই বাংলাদেশকে গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও সুশাসনভিত্তিক একটি কল্যাণ রাষ্ট্রে রূপান্তরিত করতে পারি— আমিন।

শপথ গ্রহণ শেষে এই নতুন শপথে বলীয়ান হওয়ার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

এছাড়াও

নৌপথের নিরাপত্তায় আন্তরিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবে নৌ পুলিশ

মো: সোলায়মান : রাজধানীর নৌ পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স ঈদে নৌপথে আইন শৃংখলা ও নৌ ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *