Thursday , April 25 2024
Breaking News

রাজধানীতে অপহরণকারী চক্রের নারীসহ গ্রেফতার ৫

নিজস্ব প্রতিনিধি : রাজধানী ঢাকার দক্ষিণখান এলাকা থেকে অপহরণকারী চক্রের মূলহোতাসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৪।

এ সময় অপহৃত রাশিদুস সাবরু নিলয় নামে ২৪ বছর বয়সী এক যুবককে উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

শুক্রবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে এ তথ্য জানান র‍্যাব-৪ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) ও সহকারী পুলিশ সুপার মাজহারুল ইসলাম। গ্রেফতারকৃতরা হলেন আতিয়া ইসলাম টিনা ওরফে নীলা (২২), রবিন মাহমুদ (২২), আসিফ আহমেদ (২০), শারমিন (২৬) ও জাকির হোসেন (২৪)।

র‍্যাব কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম জানান, গত ৪ এপ্রিল ভুক্তভোগী নিলয়ের বাবা র্যাব-৪ এর কাছে লিখিত একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, কিছু দুষ্কৃতিকারী তার ছেলে রাশিদুস সাবরু নিলয়কে অপহরণের পর আটক রেখে নির্যাতন করছে। মোবাইলের মাধ্যমে ছবি পাঠিয়ে নগদ ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করছে তারা।

অভিযোগের পর রাজধানীর দক্ষিনখান থানাধীন ফায়দাবাদ এলাকায় অভিযান চালায় র‍্যাব। অপহৃত যুবক নিলয়কে উদ্ধার করে র‍্যাব সদস্যরা এবং চক্রের মূলহোতাসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে। র‍্যাব কর্মকর্তা আরও বলেন, অপহৃত নিলয় সাভার থানাধীন রেডিও কলোনি এলাকার বাসিন্দা।

অপহরণকারী চক্রের মূলহোতা আতিয়া ইসলাম নীলার সঙ্গে ২০১৭ সালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরিচয় হয় তার। পরিচয়ের ২ থেকে ৩ মাস পর যখন নিলয়ের পরিবার বাসা পরিবর্তন করলে তাদের মধ্যে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

গত ২৬ মার্চ আতিয়া ইসলাম ওরফে নীলা নিলয়ের সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আবারও কুশলাদি বিনিময়ের এক পর্যায়ে দেখা করতে চান। পরে নিজ বাসায় দাওয়াতের নাম করে নিয়ে গিয়ে অন্যান্যদের সহযোগিতায় আটকে রেখে শারীরিকভাবে নির্যাতন শুরু করে নিলয়কে।

তিনি বলেন,পরবর্তীতে ভুক্তভোগীর বাবার কাছ থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অন্যথায় তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। তার বাবা কোনো উপায়ন্তর না পেয়ে র‍্যাব-৪ বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে পরে অভিযান চালানো হয়। গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

এছাড়াও

দেশের সব অর্জন ধ্বংস করেছে আওয়ামী লীগ: আমিনুল হক

এম আর রিমন: রাজধানীর পল্লবী এলাকায় বিগত দিনে গুমের শিকার থানা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *