Sunday , April 21 2024
Breaking News

পৃথিবীর তৃতীয় উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ কাঞ্চনজঙ্ঘা

পঞ্চগড় প্রতিনিধি :

পৃথিবীর তৃতীয় উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ কাঞ্চনজঙ্ঘা।এর উচ্চতা ৮ হাজার ৫৮৬ মিটার বা ২৪ হাজার ১৬৯ ফুট। প্রতি বছর এর সৌন্দর্য দেখতে দেশ-বিদেশ থেকে সৌন্দর্যপিপাসুরা পাড়ি জমান ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং জেলা শহরের টাইগার হিল পয়েন্টে। কেননা সেটিই কাঞ্চনজঙ্ঘার চূড়া দেখার সবচেয়ে আদর্শ জায়গা। কেউ কেউ অবশ্য সান্দাকপু বা ফালুট যান। কেউ আবার সরাসরি নেপালে গিয়ে কাঞ্চনজঙ্ঘার রূপ উপভোগ করেন।

তবে বাংলাদেশ থেকে যাদের নেপাল কিংবা ভারতে যাওয়ার সুযোগ মেলে না তাদের অনেকেই কাঞ্চনজঙ্ঘার রূপ অবলোকন করতে ছুটে যান পঞ্চগড় জেলার তেঁতুলিয়ার বাংলাবান্ধায়। সেখানে মেঘমুক্ত আকাশে দিনের প্রথম সূর্যকিরণের সঙ্গে সঙ্গেই চোখে পড়ে কাঞ্চনজঙ্ঘা।

বেলা একটু বাড়লেই তেজোদীপ্ত রোদ ঠিকরে পড়ে বরফাচ্ছাদিত পাহাড়ের গায়ে। কাঞ্চনজঙ্ঘা তখন ভিন্নরূপে ধরা দেয় পর্যটকের চোখে; যে রূপের টানে প্রতি বছর হাজারো পর্যটক আসেন তেঁতুলিয়ায়। সেখান থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যায়। স্থানীয়রা জানান, সাধারণত অক্টোবর থেকে নভেম্বর পর্যন্ত শীতের আগে মেঘমুক্ত নীলাকাশে ভেসে ওঠে তুষার শুভ্র হিমালয় পর্বত ও কাঞ্চনজঙ্ঘা।

সকালে সূর্যোদয়ের পর থেকেই দেখা যায় কাঞ্চনজঙ্ঘার নয়নাভিরাম নৈসর্গিক রূপ। সূর্যকিরণের তেজ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কাঞ্চনজঙ্ঘা আরও স্পষ্ট হয়ে ওঠে। সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত বেশ ভালোভাবেই দেখা যায় সেটি। তারপর ক্রমান্বয়ে আবার ঝাপসা হয়ে হারিয়ে যায় কাঞ্চনজঙ্ঘা। শেষ বিকেলে সূর্যকিরণ যখন তির্যকভাবে বরফাচ্ছাদিত পাহাড়ে পড়ে তখন অনিন্দ্য সুন্দর হয়ে আবারও ধরা দেয় কাঞ্চনজঙ্ঘা। সেই আলোতে পর্বতটির রূপ দেখে মুগ্ধ হন পর্যটকরা।

চলছে অক্টোবর মাস। এখন থেকেই কাঞ্চনজঙ্ঘার টানে তেঁতুলিয়া ছুটছেন মানুষ। তাই ব্যস্ততার ফাঁকে সময় করে একদিন দেশ থেকেই দেখে আসা যেতে পারে কাঞ্চনজঙ্ঘার চূড়ায় রোদের খেলা।

এছাড়াও

সাংবাদিককে পেটানোর অভিযোগ তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে

শেষবার্তা ডেস্ক : তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে সময়ের আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক সাংবাদিক সাব্বিরকে রড, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *