Tuesday , April 23 2024
Breaking News

কাফরুলে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি,নির্মাণ কাজ বন্ধ করায় থানায় অভিযোগ

শেষবার্তা ডেস্ক: রাজধানী কাফরুলের সেনপাড়ায় ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবিতে একটি বাড়ির সংস্কার কাজ বন্ধ করে দিয়েছে বনানী ২০ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের এক নেত্রীর রাবেয়া, তার বোন জগেন ওরফে যোগী ও তার (যোগীর) ছেলে অপূর্বের লোকজন। এর আগেও থানায় এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করেও কোনো প্রতিকার পাননি ভুক্তভোগী ওই বাড়ির মালিক গোলাম কিবরিয়া।

সোমবার (১ এপ্রিল) ১১ টার দিকে সেনপাড়া হোল্ডিং নং-৩৭৯/১ প্লটটিতে এই ঘটনা ঘটায় রাবেয়া বাহিনীর সদস্যরা।

ওই বাড়ির মালিক ও প্রত্যক্ষদর্শীদের কথা বলে জানা গেছে, কাফরুলেও সেনপাড়ায় ৩৭৯/১ নম্বর বাড়িটির পাওয়ার অফ এন্টনি সূত্রে বাড়ির মালিক হন গোলাম কিবরিয়া স্বাধীন।

জমির মালিক ভুক্তভোগী গোলাম কিবরিয়া বলেন, বাড়িটি কেনার পর থেকে দুই বোন যোগী ও রাবেয়ার যন্ত্রণায় সদা তটস্থ থাকতে হয়। এর আগেও তাদেরকে চাঁদার টাকা দিতে হয়েছে। গত ২ ফেব্রুয়ারি তারা আমার কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে।পরবর্তীতে আমি নিরুপায় হয়ে থানায় অভিযোগ ও জিডি করেছি। পরে থানা থেকে বলা হয় যোগী ও রাবেয়াকে আমার প্লটটির সামনে যেতে বারণ করা হয়। কিন্তু ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেত্রী রাবেয়া ও তার বোন, ভাগ্নে মিলে আমার কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবিতে চাপ দিচ্ছে। সোমবার সকাল ১১ টার দিকে আমার রোডের সামনে গেলে রাবেয়া ও যোগীর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা আবার চাঁদাদাবী করে। শেষে নিরুপায় হয়ে তখনই কাফরুল থানায় গিয়ে ওসি সাহেবকে বিষয়টি জানাই।

২০ লাখ টাকা চাঁদার বিষয়ে জানতে চাইলে বনানী ২০ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য রাবেয়া আক্তার সাংবাদিকদের বলেন, আমি চাঁদা চাইনি। গোলাম কিবরিয়া প্রমাণ দেব কবে কখন চাঁদা চেয়েছি। উল্টো সে আমাদেরকে চাঁদা সাদেন। সে প্রতিদিন এসে আমাদের বাড়িতে লোক পাঠাচ্ছেন। এই জমি আমাদের।

এক প্রশ্নের জবাব তিনি বলেন, সে থানায় অভিযোগ ও জিডি করে থাকে, আমরাও থানায় অভিযোগ করেছি। আর জমির কাগজপত্র তাকে বা থানার কাউকে দেখাবো এটা কোথায় লেখা আছে। আমার কাগজ যেখানে দেখানোর সেখানেই দেখ। এই জমির মালিক সে একা নন আরো অনেক মালিক আছে। সে আসল মালিক হলে কোর্ট থেকে কাগজপত্র নিয়ে এসে জমি নিয়ে যাক। আমাদের পিছনে না ঘুরে সরাসরি কোর্টের সাহায্য নেক।

সকাল বেলার বাঘ বিতন্ডের বিষয় জানতে চাইলে রাবেয়া বলেন, আপনি যদি গায়ে পড়ে এসে আমার বাসায় আমাকে বিরক্ত করেন তাহলে আমি তো ছাড়বো না কাউকে। চাঁদা চাইলে তো আমি তাকে ফোন দিবো তাকে ডিস্টার্ব করব। আমি চাঁদা আদায়ের জন্য মাস্তান পাঠাবো। সে আমকে একের পর একল কাগজ দিছে। সে কাগজ রেডি করে আমার কাছে পাঠিয়েছে সব প্রমাণ আমার কাছে আছে। সে টাকা দেওয়াও নেওয়ার জন্য লোক পাঠায় প্রতিদিন। আমি কারো টাকা অবৈধভাবে খাব না। বৈধভাবে আমি যে টাকা পাবো সেই টাকা নিব।

কাফরুল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফারুকুল আলম সাংবাদিকদের বলেন,
আমি শুনেছিলাম আজ (সোমবার) সকালে কয়েকজন জমি দেখতে লোক গিয়েছিল। তাদের বাধা দেয় ও গন্ডগোলের বিষয় জেনেছিলাম। ওই বাড়ির ভাড়াটিয়াদের ঘর থেকে বের করে দিচ্ছে আমি জানতাম না।
আমি দ্রুতই ব্যবস্থা গ্রহণ করছি। ওখানে টিম পাঠাচ্ছি।

এর আগে, গত ৩ ফেব্রুয়ারি কাফরুল থানায় সাধারণ ডাইরি করেন জমির মালিক গোলাম কিবরিয়া।

সাধারণ ডাইরিতে ভুক্তভোগী জানান, আমি বিগত ২জুন ২০২১ তারিখে জমির প্রকৃত মালিক মো. হারুন অর রশিদের কাছ থেকে আম-মোক্তারনামা দলিল সূত্রে কাফরুল থানাধীন সেনপাড়া পর্বতাস্থ হোল্ডিং নং-৩৭৯/১ প্লটটি সেমিপাকা ঘরসহ মালিক বর্তমান হই। তখন থেকে আমি প্লটটি ভোগদখল করিয়া আসিতেছি। তবে অর্থাভাবে প্লটটিতে বহুতল ভবন নির্মাণ করিতে পারি নাই। অতিসম্প্রতি কয়েকজন সিনিয়র সাংবাদিককে অংশীদার। হিসেবে নিয়া প্লটটিতে বহুতল ভবন নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করি। কিন্তু প্লটটিতে সংস্কার কাজ শুরুর কথা জানতে পেরে গত ২ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৩ টার দিকে স্থানীয় নারী মাদক কারবারী, সন্ত্রাসী ও বিআরটিএর দালাল জগেন ওরফে যোগী (৪৫),ও তার ছেলে অপূর্ব (২২) এবং অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জন লোক নিয়া আমার ওই প্লটে আসিয়া আমাকেসহ আমার লোকজনকে প্লটটিতে নির্মাণ কাজ করতে নিষেধ করে। তাহাদের নিষেধ অমান্য করে প্লটটিতে নির্মাণ কাজ করলে তাহারা আমাকে প্রাণনাশের হুমকিও দেয়। তখন আমরা ভীত সন্ত্রস্থ হইয়া প্রাণভয়ে সেখান হইতে চলিয়া আসি। আমি উচ্চ রক্তচাপের রোগী হওয়ায় ইতোমধ্যে অসুস্থ্য হইয়া পড়েছি।

এছাড়াও

মিরপুরে দম্পতিকে কুপানোর ঘটনায় সোলাইমান বাবু গ্রুপের লিডারসহ, গ্রেপ্তার ৩

আহাম্মেদ শিপলু : রাজধানীর পল্লবীতে বাসায় ঢুকে দম্পতিকে কুপিয়ে জখমকারী চিহ্নিত কিশোর গ্যাং “সোলাইমান বাবু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *