Thursday , April 25 2024
Breaking News
প্রতীকী ছবি

ওয়াকিটকি ব্যবহার নিয়ে যে বিশেষ সতর্ক বার্তা দিলো পুলিশ

শেষবার্তা ডেস্ক : পুলিশের ওয়াকিটকিতে পুলিশের সঙ্গে নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ চলাকালে অভিযান সম্পৃক্ত স্পর্শকাতর কিছু বার্তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তাদের ধারণা, কেউ একজন উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে ওয়াকিটকির বার্তা রেকর্ড করে ছড়িয়ে পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার চেষ্টা করেছিল।

বিএনপির মহাসমাবেশের দিন গত ২৮ অক্টোবর অনলাইনে একটি অডিও ছড়িয়ে পরে যার কারণে এ নির্দেশনা দেওয়া হয় বলে জানা গেছে।

ওই দিনেই পল্টন ও শাহজাহানপুর এলাকায় পুলিশ সদস্যদের কাছ থেকে ছয়টি আগ্নেয়াস্ত্র ও বেশ কিছু গুলি ছিনিয়ে নেয় দুর্বৃত্তরা। এরপরই মাঠে কাজ করা পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশে ১ নভেম্বরে অস্ত্র-গুলির নিরাপত্তা ও ৫ নভেম্বর ওয়াকিটকিতে বার্তা আদান-প্রদানে বিশেষভাবে সতর্ক থাকতে নির্দেশনা জারি করা হয়।

ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার হাবিবুর রহমান ও কমিশনারের পক্ষে উপপুলিশ কমিশনার অপারেশন স্বাক্ষরিত ভিন্ন ভিন্ন দুটি অফিস আদেশে এসব বিষয়ে সতর্কতা ও নির্দেশনা দেওয়া হয়।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশন) খ. মহিদ উদ্দিন বলেন, অবরোধ-হরতালে দায়িত্ব পালন নিয়ে পুলিশ সদস্যদের নিয়মিতই নিজেদের নিরাপত্তা ও সরকারি লজিস্টিক ব্যবহারের বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়ে থাকে। এগুলো তারই অংশ।

অফিস আদেশে বলা হয়, কর্তব্য পালনকালে পুলিশ কর্মকর্তাদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও সরকারি অস্ত্র-গুলি যানবাহনে এবং লজিস্টিকসের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ফোর্সদের জানাতে হবে। এসবের বাইরে পুলিশের স্থাপনা, মোটরসাইকেল, অ্যাম্বুলেন্সসহ সব বিশেষায়িত যানবাহন যেমন এপিসি, জলকামান ও রেকারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

একই সঙ্গে পুলিশের সদস্যরা দায়িত্ব পালনকালে দলগত ছাড়া বিচ্ছিন্নভাবে চলাফেরা করতে নিষেধ করা হয়। দায়িত্ব পালনে ব্যক্তিগত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ইউনিফর্ম, পুলিশ আইডি কার্ড, রায়ট গিয়ার পরিধান, অস্ত্র-গুলি ও ওয়াকিটকির নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

ওয়াকিটকির বিষয়ে অপর আদেশে বলা হয়, ঢাকা মহানগর পুলিশ সদস্যদের সাংগঠনিক ভাবমূর্তি রক্ষায় নিজ কর্মদক্ষতা, পেশাদারি ও দায়িত্ববোধ থেকে সতর্ক অবস্থায় বেতারযন্ত্র ব্যবহার করতে হবে। এসময় ১১টি নির্দেশনাও দেওয়া হয়।

নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে, বেতারযন্ত্রে কথোপকথনের সময় পুলিশ ছাড়া অন্য কোনো ব্যক্তির উপস্থিতি সাধ্যমতো এড়িয়ে চলতে হবে। তথ্য আদান-প্রদান করার সময় অন্য কেউ যাতে রেকর্ড করতে না পারে, সেদিকে সতর্ক থাকতে হবে। অতি গোপনীয় কোনো সংবাদ বেতারযন্ত্রে দেওয়া যাবে না। ২০ সেকেন্ডের মধ্যে নিজের কথা শেষ করতে হবে।

এছাড়াও

শহরকে বাঁচাতে দখল এবং দূষণ রোধে কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হবে:মেয়র আতিক

মো: সোলায়মান : আমরা কেউ মরণফাঁদ দেখতে চাই না বলেছেন, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন মেয়র …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *